হোমিওপ্যাথিক ওষুধে কোভিড-১৯ সারে: আবারও বলল ভারত সরকার

প্রভাতী নিউজ অনলাইন রিপোর্টঃপ্রভাতী নিউজ অনলাইন রিপোর্টঃ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৬:৪৬ পূর্বাহ্ণ, ১৯ মার্চ ২০২০




ভারত সরকার আবারও বলেছে, বিকল্প চিকিৎসা ব্যবস্থা হোমিওপ্যাথি বা আয়ুর্বেদ ওষুধ দিয়ে কোভিড-১৯ মোকাবেলা করা যাবে।

চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে দেয়া প্রথম এক উপদেশ বার্তায় ভারতের বিকল্প চিকিৎসা বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ কথা জানিয়েছিল। এ ছাড়া উপসর্গ ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে ইউনানি ওষুধ ব্যবহারের পরামর্শও এতে দেয়া হয়। এ বিকল্প চিকিৎসাধারা ওষুধ ব্যবহার করে কোভিড-১৯’এর চিকিৎসা করার জন্য দ্বিতীয় দফা উপদেশ দেয়া হয় চলতি মাসের ৬ তারিখে। ভারতের সব প্রদেশ এবং ইউনিয়ন টেরিটরির প্রধান সচিবালয় পাঠান হয় এটি।

চার পাতার এ উপদেশ বার্তায় কোভিড-১৯’এর চিকিৎসার জন্য হোমিওপ্যাথিক ওষুধ আর্সিকাম অ্যালবাম ৩০ প্রয়োগের পরামর্শ দেয়া হয়। শ্বাসতন্ত্রের সংক্রমণে এ ওষুধ হোমিও চিকিৎসকরা সাধারণত ব্যবহার করেন।

এতে, কোভিড-১৯ ঠেকাতে যোগাসন এবং প্রাণায়ামের পাশাপাশি তুলসী পাতা, আদা সেঁচা এবং হলুদ দিয়ে ফুটানো পানি মাঝে মাঝে খাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। যোগ্য যোগগুরুর নজরদারিতে যোগাসন এবং প্রাণায়াম করতে বলা হয়েছে। এতে, অন্যান্য বিকল্প চিকিৎসাধারায় প্রচলিত ওষুধ ব্যবহারের পরামর্শও সুনির্দিষ্ট ভাবে দেয়া হয়।

প্রথম দফায় আয়ুস থেকে এ পরামর্শ দেয়ার পর তা ভারতজুড়ে তীব্র সমালোচনার ঝড় তুলেছিল।

ভারতের বিকল্প চিকিৎসা বিষয়ক মন্ত্রণালয় আয়ুস (AYUSH) নামে পরিচিত। আয়ুর্বেদ, যোগ এবং প্রাকৃতিক চিকিৎসা পদ্ধতি, ইউনানি, (তামিল নাড়ু এবং কেরালায় প্রচলিত চিকিৎসা পদ্ধতি) সিদ্ধ, (তিব্বত, মঙ্গোলিয়া, ভুটান, চীনের কোন কোন অংশ, নেপাল এবং ভারতের হিমালয় অঞ্চলে প্রচলিত চিকিৎসা ব্যবস্থা আমচি বা) সোয়া-রিগা এবং হোমিওপ্যাথির ইংরেজি আদ্যাক্ষর নিয়ে ভারতের বিকল্প চিকিৎসা সংক্রান্ত মন্ত্রণালয়ের নাম আয়ুস রাখা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

প্রভাতী নিউজ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।