ঝুঁকিমুক্ত থাকতে জেনে রাখুন কোথায় কতক্ষণ বাঁচে করোনার জীবাণু

নিজস্ব প্রতিবেদক:নিজস্ব প্রতিবেদক:
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৮:৩৪ পূর্বাহ্ণ, ১৩ মে ২০২০




সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে মহামারি হয়ে গর্জে ওঠা প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের তাণ্ডবে যেন ভেঙেচুরে যাচ্ছে আমাদের পৃথিবী। বার বার রূপ বদলানো এই মরণব্যাধির বিষাক্ত ছোবলে নিত্যদিন হু হু করে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসের কোনো প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়নি, নেই কোনো ওষুধও। তাই মহামারি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি এড়াতে পারবেন তখনই যখন জানা থাকবে ভাইরাসটি কোথায় কতক্ষণ বেঁচে থাকতে পারে।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ হেলথের একজন ভাইরোলজিস্ট নিলৎজে ফান ডোরমালেন তার সহকর্মীদের নিয়ে গবেষণা চালিয়ে দেখেছেন কোভ-২ বা সার্স ভাইরাস কতক্ষণ বেঁচে থাকতে পারে।

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন-

  • দরজার শক্ত হাতল, লিফটের বাটন এবং কিচেন ওয়ার্কটপের মতো শক্ত জিনিসের গায়ে প্রায় ৪৮ ঘণ্টা টিকে থাকতে পারে ।
  • ভাইরাস কার্ডবোর্ডের মতো শক্ত জিনিসের ওপর ২৪ ঘণ্টা আর প্লাস্টিকের জিনিসের গায়ে দুই থেকে তিন দিনও বেঁচে থাকতে পারে।
  •  কাপড়ের মতো নরম জিনিসের গায়ে এটি এতো লম্বা সময় বেঁচে থাকতে পারে না।
  • যে পোশাক পরেছেন এবং তাতে যদি ওই ভাইরাস থাকেও, দু’দিন না পরলে সেখানে ভাইরাসটি জীবিত থাকার আর সম্ভাবনা নেই।
  • সব থেকে জরুরি বিষয় হচ্ছে ভাইরাসটি লেগে আছে এরকম জিনিসে শুধু স্পর্শ করলেই আপনি আক্রান্ত হবেন না। স্পর্শ করার পর আপনি যদি হাত দিয়ে মুখ, নাক অথবা চোখ স্পর্শ করেন তাহলেই এই ভাইরাসটি আপনার শরীরে ঢুকে পড়বে। তাই এই ভাইরাসটি প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ একটি করণীয় হচ্ছে হাত দিয়ে মুখ স্পর্শ না করা।

ঝুঁকিমুক্ত থাকতে আরও প্রয়োজন বারবার সাবান-পানি দিয়ে পরিষ্কার করে ধুয়ে হাত জীবাণুমুক্ত রাখা। পাশাপাশি বাইরে থাকলে সঙ্গে অবশ্যই হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখুন।

আপনার মতামত লিখুন :

প্রভাতী নিউজ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।