নন্দীগ্রামে ১৯ হাজার ১১৮ হেক্টর জমিতে আমন ধান রোপন শুরু




বগুড়ার শস্য ভান্ডার হিসেবে খ্যাত নন্দীগ্রাম উপজেলা। চলতি আমন মৌসুমের ধান উৎপাদনের লক্ষ নিয়ে এই অঞ্চলের কৃষকরা মাঠের আবাদী জমিতে আমন ধানের চারা রোপন শুরু করেছে। নন্দীগ্রাম উপজেলায় আমন ধানের বাম্পার ফলন হয়। এই অঞ্চলের কৃষকরা বিপুল পরিমান ফসল উৎপাদন করে অত্রাঞ্চলের খাদ্য চাহিদা পূরনের পরেও ৭০ভাগ ধান দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করে থাকে। দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্যা হলেও নন্দীগ্রামে এখনও তেমন পরিস্থিতি না হওয়ায় কৃষকরা কোমর বেধে মাঠে নেমেছে আমন ধান রোপন করার জন্য। চলতি আমন মৌসুমে নন্দীগ্রাম উপজেলা কৃষি অফিস থেকে ১৯ হাজার ১শ ১৮ হেক্টর জমিতে আমন চাষের লক্ষ্য মাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। এই জমিতে আমন চাষ করার জন্য ১ হাজার ৫০হেক্টর বীজতলায় চারা ফেলানো হয়েছে। মৌসুমের শুরু থেকে আবহাওয়া ভাল ও জমিতে পানি সেচ দিতে হয়নি যার কারনে অতিরিক্ত টাকা খরচ হবেনা এ বছর বীজতলায় চারা নষ্ট হওয়ার সংবাদ পাওয়া যায়নি। এবছর কৃষকরা আমন ধান হিসেবে ব্রি ধান- ৪৯, বিনা ধান- ৭, ব্রি ধান- ৩৪ ও অল্প সংখ্যক জমিতে কাটারিভোগ জাতের ধান রোপন করেছে।

এলাকার কৃষকরা জানিয়েছে বর্তমানে নন্দীগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন্ মাঠে আমন ধান লাগানো শুরু হয়েছে চারা সংকটের কোন সম্ভাবনা নাই। এ বছর অনেক কৃষক তাদের লক্ষ্য মাত্রা অনুযায়ী জমি রোপন করেও চারা বিক্রয় করতে পারবে বলে এলাকার কৃষক, অজিজ, শামিম , শহিদুল, মামুন সহ অনেকে জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার মো: আদনান বাবুর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, কৃষি অফিস থেকে কৃষকদেরকে বীজতলায় চারা তৈরী করার ব্যাপারে ভাল পরামর্শ দেওয়া হয়েছে যার কারনে চারাও ভাল হয়েছে । ফলে সুন্দর ভাবে কৃষকরা জমিতে আমন ধান রোপন করতে পারবে। এছাড়াও যে কোন সমস্যা সমাধানে কৃষি অফিস কৃষকদের পাশে রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

প্রভাতী নিউজ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।