প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা হবে, কমবে সিলেবাস

নিজস্ব প্রতিবেদক:নিজস্ব প্রতিবেদক:
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৪৫ পূর্বাহ্ণ, ২৮ জুলাই ২০২০
প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন




প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন জানিয়েছে, করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে প্রাথমিকের সিলেবাস সংক্ষিপ্ত করে মূল্যায়নের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আগামী সেপ্টেম্বরে যদি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব হয় তবে এ বছরেই প্রাথমিকের শিক্ষাবর্ষ শেষ করা হবে।

সোমবার (২৭ জুলাই) শিক্ষা সাংবাদিকদের সংগঠন বাংলাদেশ এডুকেশন রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ (ইরাব) আয়োজিত ‘করোনাকালে প্রাথমিক শিক্ষায় চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণে করণীয়’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেন, প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত আপাতত নেই। এই পরীক্ষা আরো অধিকতর যুগোপযোগী করার পরিকল্পনা করছে সরকার। আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ আছে। প্রায় সাড়ে ৫ মাস ধরে বন্ধ। এই দীর্ঘদিন বন্ধের যে ক্ষতি হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষায় তা কাটিয়ে উঠতে আমাদের বেশকিছু পরিকল্পনা রয়েছে।

সিলেবাস সংক্ষিপ্তকরণের বিষয়ে তিনি বলেন, এ বিষয়ে ইতিমধ্যে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর এবং এনসিটিবি, জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমি ন্যাপকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তারা এই বিষয়ে কাজ করছেন। সিলেবাস সংক্ষিপ্তকরণের বিষয়ে এক শ্রেণি থেকে পরের শ্রেণিতে উঠতে তাদের যতটুকু পাঠযোগ্যতা দরকার, সেটি রাখা হবে। গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়গুলো থাকবে যাতে শিক্ষার্থীরা পরের শ্রেণির পাঠের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে পারে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ঈদুল আজহার পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে বলে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। এমন কোনো সিদ্ধান্ত এখন পর্যন্ত সরকারের নেই। সরকার সিদ্ধান্ত নিলে সেটা? বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে দেয়া হবে।

ভার্চ্যুয়াল এই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইরাব’র সভাপতি মুসতাক আহমদ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক নিজামুল হক।

আপনার মতামত লিখুন :

প্রভাতী নিউজ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।