নিষেধাজ্ঞা দিয়ে অপরাধ করে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, সফল হতে পারবে না: ইরানের সর্বোচ্চ নেতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৪:১৩ অপরাহ্ণ, ৩১ জুলাই ২০২০




ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেছেন, মার্কিন নিষেধাজ্ঞাকে বাহ্যিক ভাবে কেবল ইরানের ইসলামি সরকার ব্যবস্থার বিরুদ্ধে মনে হলেও বাস্তবে তা গোটা ইরানি জাতির বিরুদ্ধে এবং এটি একটি অপরাধ।

ঈদ উপলক্ষে রেডিও ও টিভির মাধ্যমে জনগণের উদ্দেশে সরাসরি দেওয়া এক ভাষণে তিনি সবাইকে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, “আমি সব সময় মানুষের সঙ্গে সামনা সামনি সাক্ষাত পছন্দ করি। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে তা সম্ভব হচ্ছে না। এ কারণে আমি দূর থেকে আপনাদের সঙ্গে কথা বলছি।”

তিনি চলমান করোনা মহামারির মধ্যে স্বেচ্ছায় পরস্পরের প্রতি সহযোগিতায় হাত বাড়িয়ে দেওয়ায় জনগণকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, ইরানে জনগণের পক্ষ থেকে স্বেচ্ছায় যেভাবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে তা মনে হয় বিশ্বের আর কোথাও ঘটে নি। তিনি দেশের চিকিৎসক ও নার্সসহ স্বাস্থ্য খাতের সঙ্গে জড়িত সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রসঙ্গে আরও বলেন, শত্রুরা নিষেধাজ্ঞা আরোপের মাধ্যমে স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘ মেয়াদি লক্ষ্য বাস্তবায়নের চেষ্টা করে যাচ্ছে। তাদের স্বল্প মেয়াদি লক্ষ্য হচ্ছে, ইরানি জাতির জন্য কঠিন পরিস্থিতি সৃষ্টি করে তাদেরকে হতাশার মধ্য ঠেলে দেওয়া। মধ্য মেয়াদি লক্ষ্য হচ্ছে ইরানের বৈজ্ঞানিক উন্নয়ন ও অগ্রগতি বাধাগ্রস্ত করা। শত্রুদের দীর্ঘ মেয়াদি লক্ষ্য হচ্ছে ইরানের রাষ্ট্রীয় ও সরকার ব্যবস্থাকে ব্যর্থ করার পাশাপাশি অর্থনীতিকে ধ্বংস করা। এর বাইরেও শত্রুরা আঞ্চলিক প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে ইরানের সম্পর্ক ছিন্ন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তবে শত্রুরা এখনও তাদের লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারেনি, ভবিষ্যতেও পারবে না। নিষেধাজ্ঞার ব্যর্থতার কথা তারা নিজেরাই স্বীকার করছে।

শত্রুরা নিষেধাজ্ঞা আরোপের পাশাপাশি অপপ্রচার চালাচ্ছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা বলেন, মানুষকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা রুখে দিতে হবে, এর ফলে তাদের নিষেধাজ্ঞাও ব্যর্থ হবে। তিনি বলেন, নিষেধাজ্ঞা মোকাবেলার একমাত্র উপায় হচ্ছে নিজেদের শক্তি-সামর্থ্যের ওপর নির্ভর করা।

আপনার মতামত লিখুন :

প্রভাতী নিউজ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।