শিবগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২ গৃহবধু সহ এক স্কুল পড়ুয়া ছাত্রীকে মারপিট, থানায় অভিযোগ




বগুড়ার শিবগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনা কে কেন্দ্রে করে ২ গৃহবধু সহ এক স্কুল পড়–য়া ছাত্রীকে মারপিট থানায় অভিযোগ।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শিবগঞ্জ পৌর এলাকার শব্দলদিঘী গ্রামের জনৈক ফজলু ফকির এর ছেলে হযরত আলী ফকির (৩৬), আব্দুল গফুর ফকির এর ছেলে আঃ রহিম ফকির (২৭), মৃত: সিরাজ ফকির এর ছেলে ইদ্রিস ফকির (৫৮) ও আব্দুল গফুর ফকির (৪৮) বতর্মান মহামারী করোনা ভাইরাস এর সরকারি নিদের্শ উপেক্ষা করে গ্রামের মধ্যে তথা কথিত ওছলগাড়ী আলিয়ারহাট হাতিবান্ধা পীর সাহেব নিয়ে এসে জন সমাগম, আপ্যায়ন সহ মসজিদের ব্যবহৃত চর্ট নিয়ে এসে বিভিন্ন সমস্যা সৃষ্টি করে আসছে। এর প্রেক্ষিতে এই গ্রামের মৃত: রহিম উদ্দিন ফকির এর ফেলে গোফফার ফকির বাঁধা নিষেধ করে। এর প্রেক্ষিতে হযরত আলী ফকির গং ক্ষিপ্ত হয়ে ইং ০১ আগষ্ট সন্ধ্যা ৫.৪৫ ঘটিকার সময় অতর্কিত ভাবে হামলা চালায়। এসময় ১ স্কুল ছাত্রী সহ ২জন গৃহবধু আহত হয়। আতরা হচ্ছেন গোফফার এর স্ত্রী মোছাঃ খাতিজা বেগম (৩৬), মেয়ে স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থী মোছাঃ শারমিন আক্তার (১৪) ও মা বুলি বেগম (৭০)।

এ ব্যাপারে গোফ্ফার বলেন, করোনা কারণে আমি প্রতিপক্ষদেরকে বাঁধা নিষেধ করেছি, কিন্তু প্রতিপক্ষরা পীরের দোহায় দিয়ে আপ্যয়ন, জন সমাগম সহ বিভিন্ন ভাবে সমস্যা সৃষ্টি করে আসছে। যা অত্র গ্রামের সকলেই জানে। আমি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।

এ বিষয়ে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম বদিউজ্জামান এর সাথে কথা বলা হলে তিনি বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :

প্রভাতী নিউজ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।