মেহেদীর জন্মদিনকে কেন্দ্র করে নতুনধারার কর্মসূচী পালিত

প্রভাতী নিউজ ডেস্ক:প্রভাতী নিউজ ডেস্ক:
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৮:৩৮ অপরাহ্ণ, ৩১ আগস্ট ২০২০




নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদীর জন্মদিনকে কেন্দ্র করে সপ্তাহব্যাপী খাবার বিতরণ সহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালিত হয়েছে। ২৮ আগস্ট জন্মদিন হলেও কর্মসূচীটি শুরু হয় ২৪ আগস্ট প্রেসিডিয়াম মেম্বার অধ্যাপক শুভঙ্কর দেবনাথের উদ্বোধনী বক্তব্যর মধ্য দিয়ে। প্রতিদিন নিজের হাতে রান্না করে নেতাকর্মীদেরকে সাথে নিয়ে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের টিএসসি, শাহবাগ, পুরানা পল্টন, কাকরাইলের ভাসমান নিরন্ন মানুষদের মাঝে খাবার প্রদানের মধ্য দিয়ে এই কর্মসূচীর সমাপ্তি হয় ৩১ আগস্ট। তোপখানা রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত কর্মসূচীর সমাপ্তি সভায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বক্তব্য রাখেন প্রেসিডিয়াম মেম্বার বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা, ভাইস চেয়ারম্যান চন্দন সেনগুপ্ত, মহাসচিব নিপুন মিস্ত্রি প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, নিজের হাতে রান্না করে রাজপথে থাকা অভ‚ক্ত ভাসমান মানুষদেরকে খাবার দেয়ার যে নজীর নতুনধারার রাজনীতির প্রবর্তক মোমিন মেহেদী দেখিয়েছেন, তা হাজার বছরের ইতিহাসে উজ্জ্বল হয়ে থাকবে। তিনি মওলানা ভাসানী, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ সকল দেশ-মানবিক যুদ্ধে অবতীর্ণ নেতাদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের রাজনীতির মধ্য দিয়ে দারিদ্র-দুর্নীতি-সন্ত্রাস-খুন-গুমমুক্ত সমৃদ্ধ দেশ গড়তে বদ্ধ পরিকর হয়ে কাজ করছেন। নতুন প্রজন্ম ক্রমশ সাহসের সাথে তাঁর রাজনৈতিক কর্মসূচীর সাথে সম্পৃক্ত হচ্ছে। ছাত্র-যুব-জনতার রাজনৈতিক মেলবন্ধন নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবি বরাবরই গণমানুষের জন্য নিবেদিত ছিলেঅ, আগামীতেও থাকবে।

উল্লেখ্য, ১৯৮৫ সালের ২৮ আগস্ট ময়মনসিংহে জন্মগ্রহণকারী মোমিন মেহেদী’র পৈত্রিক নিবাস বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জে হলেও লেখালেখি ও রাজনৈতিক কর্মকান্ডের মধ্য দিয়ে তিনি রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে স্বনামে পরিচিত। তিনি ১৯৯৫ সালে দৈনিক ইত্তেফাকে লেখা প্রকাশের মধ্য দিয়ে লেখালেখি শুরু। বিদ্যালয় ছাত্র সংসদে সংগঠক হিসেবে রাজনৈতিকজীবন শুরু হয়; এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নকালীন সময়ে ২০০৪ সালে সাংগঠনিকভাবে বাংলাদেশের রাজনীতিতে শীর্ষ একটি ছাত্র সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বেও ছিলেন। সাথে সাথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রিক শিক্ষা-সাহিত্য-সাংস্কৃতিক-সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবি সংগঠন সাউন্ডবাংলা’র নির্বাহী পরিচালক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র অধিকার আন্দোলন জোটের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। স্বাধীনতার স্বপক্ষের রাজনীতিক ও লেখক হিসেবে বাংলাদেশের সকল পত্র পত্রিকায় তিনি নিয়মিত লিখে চলেছেন। তার প্রকাশিত গ্রন্থের সংখ্যা ৬২। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য বড়দের জন্য- ডিভোর্স (২০০৪), শকুনেরা উড়ছে (২০০৫), কাকতুড়–য়ার দেশে (২০০৭), এই চাকাটা ভালোবাসার (২০০৭) ইত্যাদি ও ছোটদের জন্য +ভূত-ভয়, বাবা, কাগজের ভূত, বাংলাদেশে স্বপ্ন ইত্যাদি। তিনি শিক্ষা-সাহিত্য-সাংস্কৃতিক-সামাজিক-স্বেচ্ছাসেবি ও রাজনৈতিক অঙ্গনে বিশেষ অবদানের জন্য অগ্নীবীণা স্বর্ণ পদক ২০০১, অনিবার্ণ পদক ২০০২, জাতীয় কবি নজরুল সম্মাননা ২০০৫, কবিগুরু পদক ২০০৭, কবি সুফিয়া কামাল পদক ২০০৮, সিএমএম-স্বপ্নালোক পদক ২০০৮, ইউএনজিপি এ্যাওয়ার্ড ২০০৯, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংস্কৃতি সম্মাননা ২০১০, বঙ্গবন্ধু সম্মননা ২০১১, ন্যাশনাল ডায়ালড এ্যাওয়ার্ড ২০১২, আনন্দ সভা(ভারত) ২০১৩, নাট্যসভা সম্মননা ২০১৪, বেস্ট এশিয়ান রাইর্টার্স এ্যাওয়ার্ড ২০১৫ সহ বিভিন্ন পদক ও সম্মাননা পেয়েছেন। নতুন প্রজন্মের রাজনৈতিক ধারা নতুনধারা বাংলাদেশ-এনডিবি’র প্রতিষ্ঠাতা মোমিন মেহেদী কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান এসবিটেল-এর সিইও হিসেবে দায়িত্ব পালনের মধ্য দিয়েও নতুন প্রজন্মের শিল্প উদ্যেক্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

বার্তা প্রেরক
(নিপুন মিস্ত্রি)
মহাসচিব, নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবি

আপনার মতামত লিখুন :

প্রভাতী নিউজ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।