দীর্ঘ ৮ বছর পর আজ আওয়ামী লীগের সম্মেলন




বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন দীর্ঘ ৮ বছর পর আজ শনিবার রহিম উদ্দীন ডিগ্রী কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার মোট ৬৩টি ওয়ার্ড সম্মেলন এবং ইউনিয়ন সম্মেলন ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে।

দীর্ঘদিন পর এ সম্মেলন কে কেন্দ্র করে এখানকার আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের মধ্যে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। এদিকে এই সম্মেলনকে ঘিরে উপজেলার মহাসড়কে জলছে আলোক সজ্জা। পুরো মহাসড়ক সহ বিভিন্ন স্থানে ব্যানার ফেসটুন লাগিয়ে সম্মেলনকে স্বার্থক করতে সাজিয়েছে মহাসড়কের দুপার্শ।

দলিয় সুত্রে সুত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালের ১২ ডিসেম্বর সর্বশেষ উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সম্মেলনে কাউন্সিলারদের ভোটে মরহুম আনছার আলী মৃধা সভাপতি ও আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম খান রাজু সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হন। ২০১৭ সালের ২৫ জুলাই আনছার আলী মৃধার মৃত্যুর পর থেকে উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট কুদরত-ই-এলাহী কাজল উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এরপর কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের নির্দ্দেশনা মতে আজ ১২ ডিসেম্বর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নির্ধারিত তারিখে সম্মেলন অনুষ্ঠানের জন্য সকল প্রস্তুতি ইতি মধ্যে সম্পূন্ন করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে আদমদীঘি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম খান রাজু জানান, উপজেলা সম্মেলনের আগে একটি পৌরসভা ও ৬টি ইউনিয়নে ৬৩টি ওয়ার্ড সম্মেলন এবং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মেলন সম্পন্ন করা হয়েছে। এদিকে সভাপতি,পদে বর্তমান উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম খান রাজু, ও সাধারন সম্পাদক পদে একাধিক প্রার্থী বর্তমান উপজেলা কমিটির সহ-সভাপতি আবু রেজা খান, আশরাফুল ইসলাম মুন্টু, সাজেদুর রহমান চম্পা, জার্জিজ আলম রতন ও নিসরুল হামিদ ফুতু, জাহিদ হাসান পিয়াল, এরশাদুল হক টুলু ও নাজিমুল হুদা খন্দকারের নাম শোনা যাচ্ছে। অনেক প্রার্থীরা তারা নিজের ছবি সম্মলিত ব্যানার ফেসটুন লাগিয়ে প্রার্থীতা জানান দিচ্ছেন। ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও উপজেলা আওয়ামীলীগের একাধিক নেতা কর্মির সাথে কথা হলে তারা বলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের বর্তমান কমিটির সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম খান রাজু দিন রাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে বিশৃংখলা ছাড়াই উপজেলার ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন কমিটি গঠন করেন। তিনি একমাত্র পরিশ্রমি নেতা তার জন্য আজ আদমদীঘি উপজেলায় আওয়ামীগের ঘাটি হিসাবে পরিনিত হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

প্রভাতী নিউজ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।