রাণীনগর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী নির্বাচিত

আচরন বিধি লংঙ্ঘনসহ নানা অভিযোগ




রাণীনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী (নৌকা) আব্দুর রউফ দুলু ২৫ হাজার ৯৫৯ ভোট পেয়ে বেসরকারী ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্ব›িদ্ব বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী মোসারব হোসেন (ধানের শীষ) পেয়েছেন ৮ হাজার ১৫৫ ভোট। স্বতন্ত্র প্রার্থী মফিজ উদ্দিন (মোটর সাইকেল) পেয়েছেন ২ হাজার ৪১৭ ভোট।

ভোট গ্রহন ও গননা শেষে নির্বাচনী কর্মকর্তা জানান,সকাল ৯ টায় ভোট গ্রহন শুরু হয়। একটানা ভোট গ্রহন চলে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত। মোট ৫৬ টি কেন্দ্র্রে ব্যালট পেপারের মাধ্যমে ভোট গ্রহন সম্পন্ন করা হয়। মোট ভোটার ছিল ১ লাখ ৪৯ হাজার ৫৮৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৭৪ হাজার ৮৬৫ জন এবং নারী ভোটার ৭৪ হাজার ৭২২ জন।

এদিকে ভোট গ্রহনের দিন দুপুরে আওয়ামী লীগের প্রাার্থীর বিরুদ্ধে আচরন বিধি লংঙ্ঘনসহ নানা অভিযোগ তোলেন প্রতিদ্ব›দ্বী অপর দুই প্রার্থী। বিএনপি প্রার্থী মোসারব হোসেন বলেন, বেশ কয়েকটি কেন্দ্র থেকে বিএনপির নির্বাচনী এজেন্ট বের করে দেয়া হয়েছে। সাধারন ভোটারদেরকে ভোট দিতে বাধা প্রদান ও বিএনপির কর্মীদের উপর হামলা ও মারপিটের অভিযোগ করেন তিনি।

স্বতন্ত্র প্রার্থী মফিজ উদ্দিন অভিযোগ করে বলেন- সুষ্ঠ ভোট হয়নি। সাধারন ভোটারদের ভোট প্রদানে বাধা দিয়েছে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর লোকজন।

আওয়ামী লীগের প্রার্থী আব্দুর রউফ দুলু সাংবাদিকদের বলেন- বর্তমান সরকার তথা এলাকার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে মানুষ আবারো নৌকায় ভোট দিতে অপেক্ষায় ছিলো। প্রতিদ্ব›দ্বী দুই প্রার্থীর অভিযোগ সঠিক নয় বলে দাবি করেন তিনি।

নির্বাচনী রিটানিং কর্মকর্তা জায়দা খাতুন জানান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদের উপ-নির্বাচন সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ ভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। কেউ কোন লিখিত অভিযোগ করেন নি জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :

প্রভাতী নিউজ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।